৩ কার্তিক ১৪২৬, শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ , ৩:১১ পূর্বাহ্ণ

কোটা বিরোধী আন্দোলনের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ।

বিডিএসনিউজ২৪.কম

প্রকাশিত : ০১:৩৩ পিএম, ৩০ জুন ২০১৮ শনিবার | আপডেট: ০৪:৩৬ পিএম, ৩০ জুন ২০১৮ শনিবার

কোটা বিরোধী আন্দোলনের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ।

কোটা বিরোধী আন্দোলনের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ।

৩০ জুন সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে কোটা বিরোধী আন্দোলনের সংবাদ সম্মেলন হওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু সংবাদ সম্মেলনে মাইকে কথা বলা নিয়ে নুরুল হক নুরু ও রাশেদ খানের মধ্যে কথা কাটা-কাটি শুরু হয়। এক পর্যায়ে দু-গ্রপের মধ্যে মারামারি শুরু হলে নুরু গ্রুপের হাতে মার খান রাশেদ। পরে রাশেদ সমর্থকদের হামলায় আহত হন নুরুও এবং পুরো ঘটনাটি ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকদের সামনেই ঘটে।

রাশেদ খান মার খেলে উল্লাস শুরু করে নুরু গ্রুপ এবং তারা রাশেদকে বেঈমান বলে নানাবিধ স্লোগান দিতে থাকে। পরে নুরু গ্রুপের উপর আক্রমন করে উল্লাস করে রাশেদ সমর্থকরাও।
মূলত গতকাল রাশেদ খান নিজের ফেসবুক একাউন্ট হতে লাইভে এসে আন্দোলনের পক্ষে ও সরকার বিরোধী নানা কথা বলে। নুরের ভাষ্য মতে রাশেদ কারো সাথে আলোচনা না করে ঐ লাইভটি করে। এবং  তারা ধারনা করেন, সরকার বিরোধী রাজনৈতিক দল হতে টাকা নিয়েছে এবং তা কাউকে জানান নি।

এই ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার সাথে সাথে নিন্দার ঝড় ওঠে। সাধারণ শিক্ষার্থীরা যারা আন্দোলনের পক্ষে ছিলেন তারা এই ঘটনার পরে হতাশ হন ও আন্দোলন কমিটির স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন।
আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, পরিস্থিতি তাদের নিয়ন্ত্রনে আছে। যেকোন অপ্রীতিকর ঘটনা সামাল দিতে তারা প্রস্তুত আছেন।