২৭ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬, বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ , ১২:২৯ পূর্বাহ্ণ

পাবলিক ক্লাউডের বাজার বেড়েছে ৩১%

বিডিএসনিউজ২৪.কম

প্রকাশিত : ০৮:৫৩ পিএম, ৩ অক্টোবর ২০১৭ মঙ্গলবার

পাবলিক ক্লাউডের বাজার বেড়েছে ৩১%

পাবলিক ক্লাউডের বাজার বেড়েছে ৩১%

গত বছর বিশ্বব্যাপী ইনফ্রাস্ট্রাকচার এজ এ সার্ভিস (আইএএএস) পাবলিক ক্লাউড বাজারের আকার বেড়েছে। ২০১৫ সালের চেয়ে ২০১৬ সালে এটির বাজার তুলনামূলক প্রায় ৩১ শতাংশ বেড়েছে। মার্কিন বাজার গবেষণা ও পরামর্শক প্রতিষ্ঠান গার্টনারের এক বিশ্লেষণে এমন তথ্য জানানো হয়েছে।

গার্টনার জানায়, ২০১৫ সালে বিশ্বে পাবলিক ক্লাউড বাজারের আকার ছিল ১ হাজার ৬৮০ কোটি ডলার, যা পরের বছরে এসে ৩১ শতাংশ বেড়ে ২ হাজার ২১০ কোটি ডলারে পৌঁছেছে। ২০১৬ সালে আইএএএস পাবলিক ক্লাইড বিক্রির দিক দিয়ে বাজারে শীর্ষে ছিল মার্কিন ই-কর্মাস জায়ান্ট ও ক্লাইড কম্পিউটিং কোম্পানি অ্যামাজন। এর পরই ছিল মার্কিন সফটওয়্যার জায়ান্ট মাইক্রোসফট ও চীনভিত্তিক ই-কমার্স জায়ান্ট আলিবাবা।

তথ্যপ্রযুক্তি ও ক্লাউড-বিষয়ক গবেষণা প্রতিষ্ঠান সিনার্জি রিসার্চ গ্রুপের বিশ্লেষণে বলা হয়, গত দুই বছরে নন-ক্লাউড তথ্যকেন্দ্রের অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগ প্রায় এক-পঞ্চমাংশ বেড়ে গেছে। এ থেকে স্পষ্ট যে, পাবলিক ক্লাউডের মাধ্যমে ব্যবস্থাপনা সেবা সরবরাহের সুযোগ বেড়েছে। এ সময়ে পাবলিক ক্লাউডের অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগ ৩৫ শতাংশ বেড়েছে। এ থেকে অনুমান করা হচ্ছে, পাবলিক ক্লাউড সরবরাহকারীদের কর্মকাণ্ড অধিক হারে বেড়েছে। 

গার্টনারের বিশ্লেষক সিগ নাগ বলেন, বর্তমানে ক্লাউড সেবার বাজার অন্য যেকোনো তথ্যপ্রযুক্তি বাজারের চেয়ে দ্রুতগতিতে বাড়ছে। এ বৃদ্ধির কারণে ঐতিহ্যগত ও নন-ক্লাউডের ব্যয় বেড়েছে। তিনি আরো বলেন, প্লাটফর্ম এজ এ সার্ভিস (পিএএএস) এবং সফটওয়্যার এজ এ সার্ভিসের (এসএএএস) মধ্যেও শক্তিশালী বৃদ্ধি লক্ষ করা যাচ্ছে। আগামী পাঁচ বছরে আইএএএসের দ্রুততম বৃদ্ধি ঘটবে বলে তিনি প্রত্যাশা করেন।

গার্টনারের তথ্যমতে, ২০১৬ সালে অ্যামাজন ওয়েব সার্ভিস বাজারে বেশ আধিপত্য বিস্তার করলেও মাইক্রোসফট আজাড় এ খাতে অনেক অগ্রগতি লাভ করেছে। এক্ষেত্রে গুগলও বেশকিছু অগ্রগতি লাভ করেছে। বাজারে নেতৃত্বদানকারী অন্য আইএএএস প্রতিষ্ঠানগুলোরও উন্নতি হবে বলে গবেষণা প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে।

বর্তমানে অ্যামাজন আইএএস বাজারে স্পষ্টত শীর্ষে রয়েছে। এ প্রতিষ্ঠানটি মোট বাজারের ৪৪ দশমিক ২ শতাংশ নিজেদের দখলে রেখেছে। অন্যদিকে মাইক্রোসফটে ৭ দশমিক ১ শতাংশ এবং আলিবাবা ৩ শতাংশ নিজেদের দখলে রেখেছে। সার্চ জায়ান্ট গুগল ২ দশমিক ৩ শতাংশ এবং র্যাকস্পেসের দখলেও ২ দশমিক ৩ শতাংশ রয়েছে। অন্যান্য প্রতিষ্ঠান অবশিষ্ট ৪১ দশমিক ২ শতাংশ আইএএএস বাজার দখলে রেখেছে। ২০১৬ সালে আলিবাবা ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়া, মধ্যপ্রাচ্য ও জাপানে চারটি নতুন তথ্যকেন্দ্র উন্মোচনের ঘোষণা দিয়েছিল।