৩০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬, শনিবার ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ , ৫:৫২ অপরাহ্ণ

বিএনপিতে বিভক্তি ॥ কয়েক সিনিয়র নেতার দল ছাড়ার আশঙ্কা

বিডিএসনিউজ২৪.কম

প্রকাশিত : ১২:৫৮ পিএম, ৪ নভেম্বর ২০১৮ রবিবার | আপডেট: ০১:৪২ পিএম, ৪ নভেম্বর ২০১৮ রবিবার

বিএনপিতে বিভক্তি ॥ কয়েক সিনিয়র নেতার দল ছাড়ার আশঙ্কা

বিএনপিতে বিভক্তি ॥ কয়েক সিনিয়র নেতার দল ছাড়ার আশঙ্কা

তফসিল না পেছালে বিএনপি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যাবে কি যাবে না এ নিয়ে দলের নেতাদের মধ্যে মতবিরোধ দেখা দিয়েছে। এক পক্ষ বলছে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া কারাগারে থাকা ও দীর্ঘদিন ধরে নিয়মিত সভা-সমাবেশ করতে না পারায় স্বল্প সময়ের মধ্যে নির্বাচনের প্রস্তুতি নেয়া সম্ভব নয়। আর অপর পক্ষ বলছে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে না গিয়ে রাজনৈতিকভাবে বিএনপিকে যে খেসারত দিতে হয়েছে তা থেকে শিক্ষা নিয়ে এবার আর ভুল করা যাবে না। এমন দোটানার মধ্যে শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত হলে ক’জন সিনিয়র নেতা দল ছাড়তে পারেন বলে আশঙ্কা রয়েছে।



খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সংলাপের পর থেকে এর ফলাফল নিয়ে শুরু হয় বিএনপি শিবিরে নানান আলোচনা-সমালোচনা। দলীয় হাইকমান্ড থেকে শুরু করে তৃণমূল নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরে এ সংলাপের লাভ-ক্ষতি নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণ চলতে থাকে। সংলাপে প্রত্যাশা অনুসারে ভাল কিছু অর্জন করতে না পারায় দলের সর্বস্তরে হতাশা নেমে আসে। তারপরও বাস্তবতার নিরিখে দলের কোমলপন্থী নেতারা আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সরকারের কাছ থেকে আরও কিছু সুযোগ-সুবিধা আদায় করে মোটামুটি শান্তিপূর্ণ পরিবেশ পেলে নির্বাচনে যাওয়ার পক্ষে অবস্থান নেয়। অপরদিকে খালেদা জিয়াকে কারাগারে বন্দী রেখে আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে নির্বাচনে গিয়ে তেমন সুবিধা করা যাবে না বলে যুক্তি দিয়ে দলের কট্টরপন্থী নেতারা নির্বাচন থেকে দূরে থাকার পক্ষে অবস্থান নেয়। তবে তফসিল পিছিয়ে দিলে এবং নিয়মিত কর্মকা-ের মাধ্যমে সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের চাঙ্গা করে নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ পেলে তারাও নির্বাচনে যাওয়ার পক্ষে। তাই বিএনপির পরামর্শে ইতোমধ্যে ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশনে চিঠি দিয়ে সংলাপ শেষ না হওয়ার আগে তফসিল ঘোষণা না করার অনুরোধ করেছে।

 

জানা যায়. প্রধানমন্ত্রীসহ ১৪ দলের সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে ঐক্যফ্রন্টের সংলাপের পর বিএনপির কেন্দ্রীয় প্রভাবশালী নেতাদের মধ্যে বর্তমান পরিস্থিতিতে আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাওয়া না যাওয়ার বিষয়ে দ্বিধাবিভক্তি দেখা দিয়েছে। তবে দলের সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে অধিকাংশই কোন অজুহাতেই নির্বাচন থেকে দূরে থাকার পক্ষে নয়। এ পরিস্থিতিতে তফসিল না পেছানোসহ কোন কারণে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত হলে বিএনপি নেতাদের মধ্যে একটি বড় অংশ দল ত্যাগ করে হলেও নির্বাচনে অংশ নিতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।