৪ আষাঢ় ১৪২৫, সোমবার ১৮ জুন ২০১৮ , ১:৩৬ অপরাহ্ণ

ব্রিস্টলকে হারিয়ে ফাইনালে ম্যানসিটি

বিডিএসনিউজ২৪.কম

প্রকাশিত : ০২:১৬ পিএম, ২৪ জানুয়ারি ২০১৮ বুধবার | আপডেট: ০৭:২৬ পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০১৮ বৃহস্পতিবার

ব্রিস্টলকে হারিয়ে ফাইনালে ম্যানসিটি

ব্রিস্টলকে হারিয়ে ফাইনালে ম্যানসিটি

ব্রিস্টল সিটিকে ৩-২ গোলে হারিয়ে পেপ গার্দিওয়ালার অধীনে প্রথম কোন টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠেছে ম্যানচেস্টার সিটি। দুই লেগ মিলিয়ে ৫-৩ গোলের দারুণ জয় পেয়েছে সিটিজেনরা। আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি ওয়েম্বলিতে হবে আসরের ফাইনাল ম্যাচ। এদিকে, কোপা দেলরে`র কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয় লেগে সেভিয়ার কাছে ৩-১ গোলে হেরেছে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ। দুই লেগ মিলিয়ে ৫-২ গোলের হারে আসর থেকে বিদায় নিয়েছে রোজি ব্লাঙ্কোস।

বায়ার্ন মিউনিখ ও বার্সেলোনাকে ফুটবল ক্যারিয়ারে একের পর এক সাফল্য উপহার দিয়েছেন। কিন্তু ২০১৬ সালে ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার সিটির দায়িত্ব নিয়ে শিরোপাহীন ছিলেন পেপ গার্দিওয়ালা। তবে, দীর্ঘদিন পর এবার প্রথম শিরোপার সুবাস পাচ্ছেন ৪৭ বছর বয়সী স্প্যানিশ এই কোচ। অ্যাস্টন গেটে ব্রিস্টলকে উড়িয়ে দিয়ে গার্দিওয়ালার অধীনে প্রথম কোন টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠলো ম্যানচেস্টার সিটি।

প্রথম লেগে ২-১ গোলের জয়ে অ্যাস্টন গেটে আত্মবিশ্বাসী হয়ে মাঠে নামে সিটিজেনরা। তবে, গোল পেতে বেশ কিছু সময় অপেক্ষায় থাকতে হয়েছে তাদের। ম্যাচের ৪৩ মিনিটে বার্নাডো`র সহায়তায় গোল করেন লেরয় সেন। ১-০ গোলে লিড পায় ম্যানচেস্টার সিটি।

গোলের আনন্দ হজম করে ওঠার আগেই ডি ব্রুইনের পাসে দলের হয়ে দ্বিতীয় গোল করেন সার্জিও আগুয়েরো। দুই গোলে পিছিয়ে পড়ে ম্যাচে ফেরার জন্য আপ্রাণ লড়াই করে ব্রিস্টল। ৬৪ মিনিটে স্বাগতিকদের লড়াইয়ে ফেরান প্যাক। এরপর যোগ করা সময়ে ফ্লিন্ট গোল করলে ড্র`য়ের পথে গড়ায় ম্যাচ।

কিন্তু শেষ বাঁশি বাজার আগে ডি ব্রুইন গোল করে ৩-২ এ এগিয়ে দেন দলকে। মাত্রই ২০২৩ সাল পর্যন্ত ক্লাবের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করেছেন ২৬ বছর বয়সী বেলজিয়ামের এ স্ট্রাইকার। ম্যাচেও সে আনন্দের রেশ ছিল তার চোখেমুখে। আগুয়েরো, ব্রুইনদের জ্বলে ওঠার দিনে দুই লেগ মিলিয়ে বড় জয়ে ফাইনালে পা রাখে ম্যানচেস্টার সিটি।

সিটিজেনরা জয় পেলেও, সমর্থকদের হতাশ করেছে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ। রামন সানচেজ বরাবরই এক ভীতির নাম অ্যাতলেটিকোর জন্য। প্রথম লেগে নিজেদের মাঠে হেরে যাওয়ায়, এমনিতেই চাপে ছিলো রোজি ব্লাঙ্কোস। রামন সানচেজে সে চাপ কাটিয়ে উঠতে পারেনি অ্যাতলেটিকো। রোজি ব্লাঙ্কোসদের হারিয়ে সেমির টিকিট কেটেছে সেভিয়া।

ম্যাচের প্রথম মিনিটেই অতিথিদের হতাশ করে এসকুয়েদারদোর গোলে লিড নেয় সেভিয়া। ১৩ মিনিটে সমতা ফেরান অ্যাতলেটকিোর আক্রমণভাগের প্রধান সেনানী গ্রিজম্যান।

এরপর বানেগা ও পাবলো সারাবিয়া আরো দুটি গোল করলে সব চেষ্টাই বিফলে যায় অ্যাতলেটিকোর। দুই লেগ মিলিয়ে ৫-২ গোলের লজ্জায় ডুবে কোয়ার্টার ফাইনাল থেকেই বিদায় নিতে হয়েছে অ্যাতলেটিকো`কে