৫ কার্তিক ১৪২৬, রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ , ৩:২১ অপরাহ্ণ

মুশফিকের ‘নাগিন-নৃত্যের’ রহস্য কী?

বিডিএসনিউজ২৪.কম

প্রকাশিত : ০৪:১৩ পিএম, ১১ মার্চ ২০১৮ রবিবার | আপডেট: ০৪:১৪ পিএম, ১১ মার্চ ২০১৮ রবিবার

মুশফিকের ‘নাগিন-নৃত্যের’  রহস্য কী?

মুশফিকের ‘নাগিন-নৃত্যের’ রহস্য কী?

জয়ের পরেই ‘ইয়েস’ ধ্বনিটা ছড়িয়ে পড়ল স্তব্ধ হয়ে যাওয়া প্রেমাদাসায়। মুশফিকুর রহিম সিঙ্গেলটা নিয়েই মুঠো পাকিয়ে উল্লাস শুরু করে দিয়েছেন, এমন বুনো উদযাপন তাঁকে করতেও বোধ হয় কেউ দেখেনি। তবে এরপর যা করলেন, সেটাই এখন হয়ে গেছে ‘টক অব দ্য কান্ট্রি’। সাপের মতো ‘নাগিন-নাচ’ দিলেন শরীর দুলিয়ে, ডাগআউট থেকে সতীর্থেরা তখন ঢুকতে শুরু করে দিয়েছে মাঠে। ‘কোবরা’ বলুন আর ‘নাগিনই’ বলুন, মুশফিকের এই নাচের রহস্য কী?

পুরো কাহিনিটা জানতে হলে ফিরে যেতে হবে বছর দেড়েক আগে। ২০১৬ বিপিএলে রাজশাহী কিংস নতুন নামে প্রথমবারের মতো খেলল বিপিএলে। সেবার রাজশাহী দলে ছিলেন বাঁহাতি স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপু। কেসরিক উইলিয়ামসের ‘সেলফি’ উদযাপন সবার নজর কেড়েছিল সেবার। তবে তার চেয়েও আলোড়ন তুলেছিল উইকেট পাওয়ার পর সাপের মতো শরীর বাঁকিয়ে অপুর ওই উদযাপন। রাজশাহীর ওই সময়ের অধিনায়ক ড্যারেন স্যামিই যেন সবচেয়ে বেশি উপভোগ করেছিলেন তা।

 

এক বছরের মধ্যে সেই নাচ আর দেখা যায়নি। এর মধ্যে অপু দল বদলে এলেন রংপুর রাইডার্সে। শুরু থেকেই আবার উইকেট পেলেই দিতেন সেই নাচ। কিন্তু সেই উদযাপনের গোমরটা আর ফাঁস হচ্ছিল না। সেটি জানা গেল সিলেট সিক্সারসের বিপক্ষে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরার পুরস্কার পাওয়ার পর। শুরুতেই উদযাপন নিয়ে জানতে চাওয়ার পর অপু লাজুক হেসে বলেছিলেন, রাজশাহী কিংসে খেলার সময় স্যামিকে সাপের নাচ দেখে ভয় দেখাতেন। সেখান থেকেই সেটা অভ্যাস হয়ে গেছে তাঁর।

এর মধ্যে বিপিএলে ভালো করে অপু ডাক পেলেন জাতীয় দলে। ওয়ানডেতে নামার সৌভাগ্য হলো না, তবে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে নেমেই নিলেন দুই উইকেট। ‘নাগিন’ নৃত্য চলে এলো জাতীয় দলে, এবার তো মহাকাব্যিক জয়ের পর মুশফিকের মাধ্যমে সেটি বাংলাদেশের ক্রিকেট-পুরাণেই ঢুকে গেল। কে জানে, জাতীয় দলেরই হয়তো তা ‘ব্র্যান্ড-নাচ’ হয়ে গেল!