১০ চৈত্র ১৪২৫, সোমবার ২৫ মার্চ ২০১৯ , ৫:৩৬ পূর্বাহ্ণ

রেকর্ড ফাঁস করেন মাহী নিজেই; ঐক্যফ্রন্ট প্রক্রিয়া বিতর্কে!(ভিডিও)

বিডিএসনিউজ২৪.কম

প্রকাশিত : ১২:০৬ পিএম, ১৪ অক্টোবর ২০১৮ রবিবার | আপডেট: ১২:০৮ পিএম, ১৪ অক্টোবর ২০১৮ রবিবার

রেকর্ড ফাঁস করেন মাহী নিজেই; ঐক্যফ্রন্ট প্রক্রিয়া বিতর্কে!(ভিডিও)

রেকর্ড ফাঁস করেন মাহী নিজেই; ঐক্যফ্রন্ট প্রক্রিয়া বিতর্কে!(ভিডিও)

সরকারবিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে নিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠিত হলেও এতে শেষ পর্যন্ত অংশ নেয়নি সাবেক রাষ্ট্রপতি ডা. বদরুদ্দোজা চৌধুরীর দল বিকল্প ধারা বাংলাদেশ। এ নিয়ে দিনভর রাজনৈতিক অঙ্গনে ছিল উত্তেজনা। সবার দৃষ্টি ছিল শেষ পর্যন্ত কী হতে যাচ্ছে সেদিকে।

শনিবার সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেসক্লাবে যখন বিএনপি, মাহী বি.চৌধুরী, জেএসডি ও নাগরিক ঐক্যের সমন্বয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আত্মপ্রকাশ চলছে, ঠিক সে সময়ে বারিধারায় পৃথক সংবাদ সম্মেলন করেছেন বি.চৌধুরী। এর আগে বিকেলে ডঃ কামাল হোসেনের বাসার সামনে থেকে ফেরত আসেন মাহী বি.চৌধুরী ও  বি.চৌধুরী । তাদের ডঃ কামালের বাসায় আমন্ত্রন জানালেও বাসায় ছিলো না ডঃ কামাল। এমনকি বাসার দরজা খুলে সে কথা বলেননি কেউ।

এদিকে রাতে ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না ও বিকল্প ধারার যুগ্ম মহাসচিব মাহী বি.চৌধুরীর মধ্যে ফোনালাপের একটি অডিও ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

এতে মাহী বি.চৌধুরী জাতীয় ঐক্য নিয়ে ‘রাষ্ট্রবিরোধী ষড়যন্ত্র’ হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন। এই ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তে মাহমুদুর রহমান মান্না ও আব্দুর রব শিকার হচ্ছেন এবং এটাতে জড়িত হননি বলে নিজেদের ধন্যবাদ জানান মাহী। তবে বিষয়টিকে ষড়যন্ত্র বলতে নারাজ মান্না।

এছাড়া জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সংবাদ সম্মেলনে মান্না কীভাবে ঘোষণাপত্র পাঠ করলেন সে বিষয়েও প্রশ্ন তুলেন মাহী। তবে ঘোষণাপত্র পাঠের বিষয়ে একটি ‘সিচ্যুয়েশন’র শিকার হয়েছেন বলে দাবি করেছেন মান্না।

এ সময় মাহমুদুর রহমান মান্না বিকল্প ধারা ঐক্যপ্রক্রিয়ার বাইরে থাকবে কিনা এমন প্রশ্ন তুললে মাহী বলেন, ‘তাদের ঐক্য প্রক্রিয়া থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। তার বাবাকে অপমান করা হয়েছে।’ আজকে ঐক্যফ্রন্টের ঘোষণাপত্র পাঠের বিষয়ে তাদের জানানো হয়নি বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

কথোপথনে জামায়াতে সঙ্গে আঁতাত করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট কাজ করবে ও ক্ষমতা আসার চিন্তায় অন্যরা বিভোর বলে অভিযোগ করেন মাহী। এর অংশ তারা হবেন না বলেও জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে বি.চৌধুরী অংশ নেবেন এমন তথ্য দিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মিথ্যাচার করেছে বলেও অভিযোগ করেন মাহী। তিনি বিষয়টিকে জনগণের সামনে সঠিকভাবে উপস্থাপন করা জরুরি ছিল বলেও দাবি করেন। তিনি বলেন, ‘আপনার বলতেন তাদের অনুষ্ঠানে দাওয়াত দেওয়া হয়নি। এ বিষয়টি জাতির সামনে তুলে ধরতেন।’

মাহী বি.চৌধুরী আরও বলেন, ‘মান্না ভাই আমি জানি আপনি ঐক্যের বিষয়ে আন্তরিক। আমরাও ঐক্যে বিষয়ে হান্ড্রেড পারসেন্ট আন্তরিক। তবে ঐক্যের নামে এখানে কোনও রাষ্ট্রবিরোধী ষড়যন্ত্র হইতেছে। আপনাকে দিয়ে ঘোষণা পাঠ করাইতেছে। আমাকেও ঢুকানোর চেষ্টা করছিল। আজকের এই কথাটা শুধু মনে রাইখেন।’

 

জবাবে মান্না একটি দীর্ঘশ্বাস ফেলে বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে চিন্তা করবো। আরও কথা বলবো সামনা-সামনি।’

এ সময় মাহী প্রতিউত্তরে বলেন, ‘আমার মনে হয় একটি চক্রান্তের মধ্যে আপনারা ভিক্টিম হয়ে যাচ্ছেন মান্না ভাই। আমি আপনাকে একদম আমার মনের বিশ্বাস থেকে বললাম এখানে আসলে ঐক্য প্রক্রিয়ার নামে একটি চক্রান্ত ও ষড়যন্ত্র হইতেছে এবং এইটার মধ্যে আমাদের জড়াইয়া ফেলানোর চেষ্টা করা হইছিলো। আল্লাহর রহমত ছিল আমিও বাঁইচা গেছি এবং আপনাকে দিয়া আজকে ঘোষণাপত্র পাঠ করাইলো। দিস ইজ নাথিং বাট এ কনস্পিরেসি। এখানে কোনও জাতীয় ঐক্যের বিষয় নাই। একটা কনস্পিরেসি হচ্ছে। চক্রান্ত হচ্ছে।’

এ সময় মাহমুদুর রহমান মান্না বিষয়টিকে এত বড় করে দেখছেন না বলে জানান। প্রতিউত্তরে ঐক্য ঘিরে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক চক্রান্ত হচ্ছে এবং মান্নাকে একটু বিশেষ দৃষ্টি দিয়ে বিষয়টিকে পর্যবেক্ষণের আহ্বান জানান মাহী।

কথোপকথনের বিষয়টি স্বীকার করে মাহী বি.চৌধুরী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘অামি জাস্ট শকড। কথা বলার এক ঘণ্টার মধ্যে কথা ফাঁস হয়ে যায়, এটা অবিশ্বাস্য। অার কথা তো বলেছি, এগুলো স্বাভাবিক কথা।’

শনিবার সন্ধ্যা সোয়া সাতটার দিকে মাহমুদুর রহমান মান্না ফোন করেন মাহীকে। ওই সময়ের অালাপই ফাঁস হয়েছে। এর অাগেও এদিন দু’জনই পরস্পরকে একাধিকবার ফোন করেন। মান্না ফোন করার অাগে মাহীও তাকে মোবাইল ফোনে কল করেন।

মাহী বি.চৌধুরী অস্বীকার করলেও ধারনা করা হচ্ছে এই  ফোন কলটি মাহী বি চৌধুরী ফাঁস করেন। ফোন কলটিতে মাহী বি.চৌধুরীর কন্ঠ স্পস্ট শোনা যায়। ট্যাকনোলজি এক্সপার্টদের মতে মোবাইল কোম্পানীর করা রেকর্ডে দুই জনের কন্ঠ সম-স্বরে শোনা যায়। কিন্তু এই অডিওর ভয়েস শুনে বুঝা যায় যে রেকর্ডটি মাহী বি.চৌধুরীর মোবাইলে থেকেই করা হয়েছে।