৪ ভাদ্র ১৪২৬, মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ , ৩:২৯ পূর্বাহ্ণ

লাকির বাসা থেকে অপ্রীতিকর অবস্থায় কোটা আন্দোলন নেতা সুহেল ‘আটক’

বিডিএসনিউজ২৪.কম

প্রকাশিত : ০২:২৭ পিএম, ১২ জুলাই ২০১৮ বৃহস্পতিবার | আপডেট: ০৮:৪৩ পিএম, ১২ জুলাই ২০১৮ বৃহস্পতিবার

লাকির বাসা থেকে অপ্রীতিকর অবস্থায় কোটা আন্দোলন নেতা সুহেল ‘আটক’

লাকির বাসা থেকে অপ্রীতিকর অবস্থায় কোটা আন্দোলন নেতা সুহেল ‘আটক’

কোটা সংস্কার নিয়ে আন্দোলন করা বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতা এ বি এম সুহেলকে ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি লাকি আক্তারের বাসা থেকে রাতে আপত্তিকর অবস্থায় আটকের খবর পাওয়া গেছে।


ছাত্র ইউনিয়নে নেত্রী তার ফেসবুকে এই ঘটনাটি তুলে ধরেছেন তার মত করে। তবে সুহেল কেন এবং কি করছিলো তা নিয়ে স্পস্ট করে বললেননি লাকি ।

এ নিয়ে কোটা আন্দোলনের অন্তত ‍তিন জন নেতা এখন নিরাপত্তা হেফাজতে। এদের মধ্যে রাশেদ খাঁন দুই দফায় ১৫ দিনের রিমান্ড পার করছেন। আর ফারুক হাসান আছেন কারাগারে। তবে সুহেলের বিরুদ্ধে কী অভিযোগ সেটা স্পষ্ট নয়। তবে এর আগে নারী কেলেঙ্কারিতে গন-ধোলাই খেয়েছিলেন সুহেল। নারী ঘটিত অনেক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এর আগে সুহেল কয়েকট স্ক্রিনশট ভাইরাল হয়। যাতে সুহেলকে অনেক নারীর সাথে আপত্তিকর অবস্থায় দেখা যায়।

ভোর সোয়া চারটা নাগাদ তার বাসায় গোয়েন্দা পুলিশ অভিযান চালায়। আটকের পর লাকির বাসার প্রতিবেশীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, লাকির চলাফেরা খুব উশৃঙ্খল । রাজনৈতিক পরিচয় থাকায় তাকে কেউ কিছু বলে না। তার বাসায় প্রতিদিন অনেক ছেলে আসে ও মাদকের আড্ডা বসে বলে জানা যায়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও  দুর্যোগ বিজ্ঞান ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক এএসএম মাকসুদ কামাল বলেন , আন্দোলন এর দাবি মেনে নেয়ার পর তা বাস্তবায়নের জন্য সরকার কমিটি ঘঠনের পর আন্দোলন এর মানে নেই। ছাত্রদের উচিত পড়াশুনার জন্য ক্লাশে ফিরে যাওয়া। তবে এখন যারা অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটাতে চাচ্ছে তাদের আইনের আওতায় আনা উচিত।

আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সাথে কথা বলতে চাইলে গ্রফতারের বিষয়ে স্পস্ট করে কিছু না বললেও তারা জানান, শিবির ও কয়েকটি জঙ্গি সংগঠন সরকার পতনের জন্য আন্দোলনকে ব্যাবহার করছে। আর এদের সঙ্গ দিচ্ছে বাম ছাত্র সংগঠন গুলো। তবে যে কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা মোকাবিলায় প্রস্তুত আছেন।

গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার দেবদাস ভট্টাচার্য জানান, ‘আটকের বিষয়টি আমার জানা নেই। আমি বলতে পারছি না। আমি খোঁজ নিয়েছি এই রকম কেউ বলতে পারছে না। আমাদের পক্ষ থেকে তাকে অ্যারেস্ট করা হয়নি।’